'মিও আমোর'-এর পর এবার যাদবপুরের এক নামি রেস্তোরাঁয় বন্ধ হল রূপঙ্করের গান

'মিও আমোর'-এর পর এবার যাদবপুরের এক নামি রেস্তোরাঁয় বন্ধ হল রূপঙ্করের গান
08 Jun 2022, 12:35 AM

'মিও আমোর'-এর পর এবার যাদবপুরের এক নামি রেস্তোরাঁয় বন্ধ হল রূপঙ্করের গান

 

আনফোল্ড বাংলা প্রতিবেদন: আগেই নামি কেক প্রস্তুতকারক সংস্থা 'মিও আমোর' রূপঙ্করের গাওয়া জিঙ্গেল বাদ দেওয়ার পর রূপঙ্করের গাওয়া কোনও গান না বাজানোর সিদ্ধান্ত নিল শহরের আরো এক নামি রেস্তোরাঁ। যাদবপুরের এক নামি রেস্তোরাঁ সিদ্ধান্ত নিয়েছে যে তারা তাদের রেস্তোরাঁয় রূপঙ্করের গাওয়া কোনও গান চালাবেন না।

রেস্তোরাঁর বাইরে এই সংক্রান্ত নোটিশ লাগিয়ে দেওয়া হয়েছে কর্তৃপক্ষের তরফে। যেখানে জানানো হয়েছে জনস্বার্থে ও মানুষের বিক্ষোভের কথা মাথায় রেখে রূপঙ্কর বাগচীর গান তাঁরা না বাজানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছেন।

উল্লেখ্য, ওই রেস্তোরাঁয় খাবারের পাশাপাশি অন্দরসজ্জা এবং তার সঙ্গে বাঙালি গায়কদের নানা সময়ের গান চালানোর জন্য সুনাম আছে। এই কারণেই গ্রাহকদের কাছেও রেস্তোরাঁটি ভীষণভাবে পছন্দের। বিভিন্ন বাঙালি গায়কদের পাশাপাশি সেই তালিকায় ছিলেন রূপঙ্কর বাগচীও। চলতো তাঁর গাওয়া গান। কিন্ত ৩১শে মে-এর পর থেকে পাল্টে গেছে পুরো প্রেক্ষাপট। প্রথমে জনপ্রিয় গায়ক কে কে-কে নিয়ে তাঁর বিতর্কিত মন্তব্য এবং তারপরেই কাকতালীয়ভাবে কে কে-এর মৃত্যু যেন ঘৃতাহুতি দিয়েছে রূপঙ্করের ওই মন্তব্যে। যার জেরে নেটিজেনদের রোষের মুখে পড়েন গায়ক। বেশ কয়েকদিন এরকম চলার পর শেষ পর্যন্ত কলকাতা প্রেসক্লাবে একটি সাংবাদিক সম্মেলনে এসে জনসমক্ষে ওই ঘটনার জন্য ক্ষমাপ্রার্থনা করেন রূপঙ্কর বাগচী। তারপরেও থামছেনা বিতর্ক।

Mailing List