বাস্তুশাস্ত্র অনুসারে ঠাকুরের সামনে নিবেদন করা ফুল শুকিয়ে গেলে, কী করা উচিৎ জেনে নিন

বাস্তুশাস্ত্র অনুসারে ঠাকুরের সামনে নিবেদন করা ফুল শুকিয়ে গেলে, কী করা উচিৎ জেনে নিন
13 May 2022, 10:20 PM

বাস্তুশাস্ত্র অনুসারে ঠাকুরের সামনে নিবেদন করা ফুল শুকিয়ে গেলে, কী করা উচিৎ জেনে নিন

আনফোল্ড বাংলা প্রতিবেদন: বাড়িতে বা অফিসে , যেখানেই হোক না কেন, পুজো করার সময় ঠাকুরকে ফুল দিয়ে সাজিয়ে তারপর পুজো-পাঠ করি। সকালে ভোগের পাশাপাশি ঠাকুরের মন্দিরে তাজা ফুল বা ফুলের মালা অর্পন করা হয়। আর সেই ফুল যতক্ষণ না শুকিয়ে কাঠ হয়ে যায়, ততক্ষণ সেখানে পড়েই থাকে। অনেকে আবার সপ্তাহে একবার ফুলের মালা বা ফুল নিবেদন করেন। আবার অনেকে মন্দিরে বা ঠাকুরের সামনে ফুল নিবেদন করে তা সরাতে ভুলে যায়। বাস্তু অনুযায়ী এই পদ্ধতিতে ঠাকুরের সেবা করার মানেই নেই। 

বাস্তুশাস্ত্র অনুসারে, সকালে মন্দিরে দেওয়া ফুলগুলি সন্ধ্যার পরে মন্দির থেকে সরিয়ে ফেলা উচিত। বাস্তুর নিয়ম অনুযায়ী, শুকনো বা শুকনো ফুল রাখা একেবারেই উচিত নয়। এর ফলে ঘরে নেগেটিভ ও অশুভ শক্তির প্রভাব পড়ে। ঘরে অশান্তি রোজকার ঘটনা হয়ে দাঁড়ায়। এছাড়া মন্দিরে শুকনো ফুল রাখলে অক্ষুন্ন হোন অধিষ্ঠাত্রী। তাই সন্ধ্যায় সম্ভব হলে মন্দির বা ঠাকুরের জায়গা থেকে শুকনো-পচা ফুল সরিয়ে রাখুন।

ভগবানের সামনে শুকনো ফুল রাখা অশুভ বলে মনে করা হয়। পারিবারিক অশান্তির পাশাপাশি পেশাগত দিক থেকেও ক্ষতির শিকার হতে পারেন আপনি। আর্থিক দিক থেকে কোনও রকম উন্নতি নাও ঘটতে পারে। ঘরে তাজা ফুল রাখলে পজিটিভ এনার্জি ছড়িয়ে পড়ে। 

এবার জেনে নিন এই শুকনো ফুলগুলি দিয়ে কী করবেন-

মন্দির বা ঠাকুরঘরে ব্যবহৃত ফুল সাধারণত ফেলে দেওয়া হয়। সেগুলি প্রসাদ ও আশীর্বাদ হিসেবে অনেকে কাছে রেখে দেন। ভগবানের উপর বিশ্বাস রেখে বইয়ের পাতার ভাঁজে বা ব্যাগের মধ্যে রেখে দেন অনেকেই। কিন্তু এমনটা কখনও করবেন না। বাস্তু মেনে চললে তা করা একেবারেই ভুল। তাই শুকিয়ে যাওয়া ফুলগুলি গঙ্গা বা পুকুরের জলে ফেলে দিন। সবচেয়ে ভাল হয়, কোনও চলমান জলে ফেলে দিলে। এছাড়া কোনও গাছের নীচে মাটিতে পুঁতে রাখতে পারেন। শুকনো ফুল কোনও হাঁড়িতে রেখে দিতে পারেন।

ads

Mailing List