বাস্তুশাস্ত্র অনুসারে কোন কোন জায়গায় জুতো পরে গেলে হতে পারে বাস্তুদোষ, জেনে নিন

বাস্তুশাস্ত্র অনুসারে কোন কোন জায়গায় জুতো পরে গেলে হতে পারে বাস্তুদোষ, জেনে নিন
13 May 2022, 10:23 PM

বাস্তুশাস্ত্র অনুসারে কোন কোন জায়গায় জুতো পরে গেলে হতে পারে বাস্তুদোষ, জেনে নিন

আনফোল্ড বাংলা প্রতিবেদন: বাস্তুশাস্ত্র অনুসারে বাড়ির বাস্তুর সমস্যা দূর করতে চপ্পল পরে এই পাঁচটি জায়গায় যাওয়া উচিত্‍ নয়। চলুন জেনে নেওয়া যাক সেই জায়গাগুলো কী কী।

বাস্তুশাস্ত্রে একটি বিশ্বাস রয়েছে যে বাড়িতে বাস্তু ত্রুটির কারণে আর্থিক সংকট, পারিবারিক কলহ সহ স্বাস্থ্য সংক্রান্ত সমস্যার সম্মুখীন হতে হতে পারে। আসুন জেনে নিই কোন কোন জায়গায় জুতা ও চপ্পল পরে গেলে তা হবে বাস্তুশাস্ত্র অনুসারে বাস্তু দোষ।

ভান্ডার-ঘর: বাস্তুশাস্ত্রে বলা হয়েছে জুতা-চপ্পল পরে দোকানে যাওয়া অশুভ। এতে করে ঘরে খাবারের অভাব হয়। এ কারণে ভুলেও চপ্পল পরে দোকানে যাওয়া উচিত্‍ নয়।

খিলানের কাছে: বিশ্বাস করা হয় যে ভল্টে মা লক্ষ্মী বাস করেন। এ কারণে জুতা-চপ্পল পরে সেফ খোলা উচিত্‍ নয়। এর ফলে মা লক্ষ্মী ক্রুদ্ধ হন এবং ঘরে আর্থিক সংকট শুরু হয়।

পবিত্র নদী: বাস্তুশাস্ত্র অনুসারে, জুতা এবং চপ্পল পরে পবিত্র নদীর ধারে যাওয়া উচিত্‍ নয়। পবিত্র নদীতে স্নানের আগে জুতা ও চপ্পল বা চামড়ার জিনিসপত্র নদী থেকে দূরে সরিয়ে রাখতে হবে। বিশ্বাস করা হয় যে এটি করলে ঘরে সুখ শান্তি বজায় থাকে।

রান্নাঘর: কথিত আছে চপ্পল পরে রান্নাঘরে যাওয়ার জন্য মা অন্নপূর্ণা রেগে যান। বাড়িতে শুরু হয় আর্থিক সংকট। এ কারণে ভুলেও চপ্পল পরে রান্নাঘরে যাওয়া উচিত্‍ নয়।

মন্দির বা উপাসনালয়: হিন্দু ধর্মে মন্দির বা উপাসনালয়কে ঈশ্বরের ঘর বলে মনে করা হয়। বিশ্বাস করা হয় এখানে জুতা-চপ্পল পরে গেলে দেব-দেবীরা ক্রুদ্ধ হন। আর তাদের ক্রোধের কারণে ঘরে আর্থিক ক্ষতি শুরু হয়। পরিবারে অশান্তি বিরাজ করছে। মানুষের মনে কুবুদ্ধির অভ্যাস আছে, যা ঘরের অতুলনীয় ক্ষতি করে।

ads

Mailing List