একদিকে তলোয়ার হাতে জলদস্যু, তখন সেই জাহাজেই স্ত্রী আর ছোট্ট বাচ্চা, সত্যকাহিনী শোনাচ্ছেন দেবজ্যোতি সোম/ দ্বিতীয় পর্ব

একদিকে তলোয়ার হাতে জলদস্যু, তখন সেই জাহাজেই স্ত্রী আর ছোট্ট বাচ্চা, সত্যকাহিনী শোনাচ্ছেন দেবজ্যোতি সোম/ দ্বিতীয় পর্ব
17 Oct 2021, 09:00 PM

একদিকে তলোয়ার হাতে জলদস্যু, তখন সেই জাহাজেই স্ত্রী আর ছোট্ট বাচ্চা, সত্যকাহিনী শোনাচ্ছেন

দেবজ্যোতি সোম

 

দ্বিতীয় পর্ব 

 

জলদস্যুর গল্প শুনেছেন অনেকেই। কিন্তু চোখে দেখেছেন নাকি কেউ? জাহাজেও নাকি লোকে লুকিয়ে উঠে পড়তে পারে! ভাবতে অবাক লাগছে? মাঝসমুদ্রে কত বিপদ থাকে জাহাজে? যাঁরা দেখেননি বা শোনেননি, তাঁদের কাছে এমনই একটি বাস্তব অভিজ্ঞতার কাহিনী নিয়ে হাজির হচ্ছেন জাহাজের অবসরপ্রাপ্ত মেরিন রেডিও অফিসার দেবজ্যোতি সোম

 

এ নিয়ে পরে ক্যাপটেনের সঙ্গে কথা হল। তাঁর কাছে শুনলাম Safe টা প্রথম দিকে খুলছিল না বলে। তখন ওরা বারবার প্রাণনাশের হুমকি দিচ্ছিল।

 

সমস্যাটা আরও জটিল হয়েছিল সেই সময় ক‍্যাপটেনের বউ এবং বাচ্চা জাহাজে থাকায়। খুবই টেনশন হয়ে গিয়েছিল। ক‍্যাপটেনের বউয়ের তখন ঘুম ভেঙে গিয়েছিল। তিনি খাটে বসে ছিলেন। তবে Captain এর বউ এর সঙ্গে কোনও রকম দুর্ব‍্যবহার করেনি দস্যুরা। ভাগ‍্যক্রমে Captain এর দু’বছরের ছেলেটার ঘুম ভেঙি যায়নি। তাহলে বাচ্চাটা অত‍্যন্ত ভয় পেয়ে যেত। traumatised হয়ে যেতে পারতো। কারণ, ওই দুটো জলদস্যুর হাতে তলোয়ার ছিল। তলোয়ার (sword) হাতে দেখলে সদ্য ঘুম থেকে ওঠা বাচ্চার এরকম হতেই পারে।

পুরনো স্মৃতি

Captain এর কাছে শুনলাম, যাবার আগে, জলদস্যু দুটো Captain কে বলে গেছে, Bye Bye Captain, see you again। এই বলে জলদস্যু দুটো running জাহাজ থেকে জলে ঝাঁপ দিয়ে পগার পার।

 

নিশ্চয়ই ওদেরকে তুলে নেবার জন‍্যে, কোনো ছোটো বোট পিছন পিছন আসছিলো। ওরাও running জাহাজেই উঠেছিলো। পরে জানা গিয়েছিলো, ওরা ইন্দোনেশিয়ান। ইন্দোনেশিয়ার coast ঐ সময়ে খুব দূরে ছিলো না।

ওরা যখন জাহাজ থেকে জলে ঝাঁপ দিয়ে পালিয়ে যায়, তখন আনুমানিক সকাল পৌনে ছটা।

 

খুব সম্ভব সকাল সাড়ে চারটে-পাঁচটা নাগাদ ওরা running জাহাজেই উঠে পড়ে। ওদের সে কৌশল জানা আছে। আমাদের জাহাজের জলে গতি ছিলো, ঘন্টায় প্রায় কুড়ি কিলোমিটার।

পুরনো স্মৃতি

Cargo জাহাজে security বলতে piracy watch, informing coast guard, nearest country port control, sailors are not allowed to fight. Sailors should surrender., if pirates board, let them rob, company will compensate. But sailor's efforts should be, before they board the vessel, try to inform all authorities, related to safety concerned, so that, loss can be minimised and/or if possible, practicable danger can be averted.

If you see climbing, out at sea, while ship is sailing, then at the most you can try to hose them down. Nothing more.

In this regards, Lagos and Lagos water (Nigeria) is the most notorious in the world, and Mogadishu (Somalia), where, even they may use rocket launcher.

 

যার বাংলা তর্জমা করলে দাঁড়ায় —

কার্গো জাহাজে নিরাপত্তা বলতে জলদস্যু ওয়াচ, কোস্ট গার্ডকে জানানো, নিকটতম দেশের বন্দর নিয়ন্ত্রণ। নাবিকদের যুদ্ধ করার কোনও অনুমতি নেই। নাবিকদের আত্মসমর্পণ করার রীতিই বিলকুল। কিন্তু জাহাজে ওঠার আগে নাবিকের সব ধরণের ব্যবস্থা নেওয়া প্রয়োজন। নিরাপত্তার সাথে সম্পর্কিত সকল কর্তৃপক্ষকে অবহিত করাও জরুরি। যাতে ক্ষয়ক্ষতি কমিয়ে আনা ও বিপদ এড়ানো যায়।

যদি কোনও জলদস্যুকে জাহাজে উঠতে দেখা যায়, তাহলে তাকে বড়জোর নামিয়ে দেওয়ার চেষ্টা করা এই ধরণের ভয়ঙ্কর জায়গার অন্যতম হল, নাইজেরিয়ার লাগোস। যা বিশ্বের সবচেয়ে কুখ্যাত হিসেবে পরিচিত। এছাড়া রয়েছে সোমালিয়ার মোগাদিসু। তারা এতটাই ভয়ঙ্কর যে, রকেট লঞ্চার পর্যন্ত ছুড়তে পারে।

চলবে...

ads

Mailing List