প্রাকৃতিক দুর্যোগের মধ্যেই বিদ্যালয়ের প্লাটিনাম জয়ন্তী উপলক্ষে রক্তদান শিবির

প্রাকৃতিক দুর্যোগের মধ্যেই বিদ্যালয়ের প্লাটিনাম জয়ন্তী উপলক্ষে রক্তদান শিবির
20 Aug 2022, 10:40 PM

প্রাকৃতিক দুর্যোগের মধ্যেই বিদ্যালয়ের প্লাটিনাম জয়ন্তী উপলক্ষে রক্তদান শিবির

 

সুব্রত গুহ, পূর্ব মেদিনীপুর

 

প্রাকৃতিক দুর্যোগ স্বত্বেও পূর্ব নির্ধারিত দিনেই রক্তদান শিবির অনুষ্ঠিত হল পূর্ব মেদিনীপুরের রামনগর ২ ব্লকের করঞ্জি সুভাষ বিদ্যাভবনে। বিদ্যালয়ের প্লাটিনাম জয়ন্তী বর্ষের তৃতীয় পর্বে আয়োজিত শিবিরে ১০ জন মহিলা সহ মোট ২৩ জন স্বেচ্ছায় রক্তদান করেন। প্রদীপ প্রজ্বলনের মধ্য দিয়ে শিবিরের সূচনা করেন কাঁথি ব্লাড সেন্টারের সিনিয়র নার্স ইতা বেরা। প্রধান অতিথি ছিলেন প্লাটিনাম জয়ন্তী উদযাপন কমিটির কার্যকরী সভাপতি তথা প্রাক্তন ছাত্র ও বোধড়া পন্থেশ্বরী হাইস্কুলের অবসরপ্রাপ্ত শিক্ষক যুগল কিশোর শতপথী, অতিথিরূপে উপস্থিত ছিলেন প্রাক্তন শিক্ষক অশোক কুমার মাইতি, বালিসাই গ্রাম পঞ্চায়েতের সদস্য সুখেন্দু বিকাশ পাত্র, অ্যালামনি অ্যাসোসিয়েশনের সম্পাদক তথা পূর্ব করঞ্জি প্রাথমিকের শিক্ষক চক্রধর পাহাড়ী। সমগ্র অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন প্লাটিনাম জয়ন্তী উদযাপন কমিটির সভাপতি তথা প্রাক্তন ছাত্র, সম্পাদক ও দীঘা দেবেন্দ্রলাল জগবন্ধু শিক্ষাসদনের শিক্ষক নন্দগোপাল পাত্র। স্বাগত বক্তব্যে বর্তমান প্রধান শিক্ষক ড. সন্দীপ কুমার মিশ্র বলেন, করোনা অতিমারীর জন্য অনুষ্ঠান পিছিয়ে দিতে হয়েছে। সমাপ্তি পর্বের অনুষ্ঠান আগামী ২৬-২৭ সেপ্টেম্বর হবে। সেই সময়ে প্রকাশিত হবে প্লাটিনাম জয়ন্তী স্মারক গ্রন্থ “স্মরণপথ”। সভায় উপস্থিত সকলের মাধ্যমে স্মারক গ্রন্থের জন্য প্রাক্তন ছাত্রছাত্রী শিক্ষক শিক্ষিকা পরিচালন সমিতির সদস্য ও শিক্ষানুরাগীগণের থেকে লেখা আহ্বান করেন। শিবিরে উদযাপন কমিটির সভাপতি নন্দগোপাল পাত্র ছিলেন প্রথম রক্তদাতা। এছাড়াও প্রধান শিক্ষক ড. সন্দীপ কুমার মিশ্র, পার্শ্ব শিক্ষক  দীপঙ্কর জানা, অতিথি শিক্ষক সুতনু জানা, সুব্রত দাস, পরিচালন সমিতির প্রাক্তন সভাপতি বিমল মাইতি, পূর্ব করঞ্জি প্রাথমিকের শিক্ষক প্রণব জানা প্রমুখ রক্তদান করেন। প্রসঙ্গত প্রাক স্বাধীনতা পর্বে রামনগর থানার করঞ্জিসহ সটিলাপুর এলাকার ছেলে মেয়েদের অন্তরে অশিক্ষা অজ্ঞতার অন্ধকার দূর করতে ৮ মার্চ ১৯৪৭ পথ চলা শুরু করঞ্জি সুভাষ বিদ্যাভবনের। স্বাধীনতা সংগ্রামী সর্বেশ্বর পণ্ডা, বিদ্যানুরাগী রামকৃষ্ণ মহাপাত্রের উদ্যোগে দুই শ্রেণি বিশিষ্ট নব প্রতিষ্ঠিত বিদ্যালয়ের নামকরণ হয় করঞ্জি সুভাষ বিদ্যাভবন। পরবর্তী সময়ে রমণী রঞ্জন মাইতি, হরিপদ মাইতি, রাধাকান্ত পতি, বিজয়কৃষ্ণ পাত্র প্রমুখের সার্বিক সহযোগিতায়  অষ্টম শ্রেণি পর্যন্ত অনুমোদন পায়। ২০১০-এ মাধ্যমিক স্তরে উন্নীত হয়।

Mailing List