প্রতিমা ভাসাতে গিয়ে হড়পা বানে ৮ জনের মৃত্যু জলপাইগুড়িতে, চালু হল হেল্পলাইন

প্রতিমা ভাসাতে গিয়ে হড়পা বানে ৮ জনের মৃত্যু জলপাইগুড়িতে, চালু হল হেল্পলাইন
06 Oct 2022, 07:20 PM

প্রতিমা ভাসাতে গিয়ে হড়পা বানে ৮ জনের মৃত্যু জলপাইগুড়িতে, চালু হল হেল্পলাইন

 

আনফোল্ড বাংলা প্রতিবেদন: ভয়াবহ হড়পা বানে ভেসে মৃত্যু হয়েছে ৮ জনের। বুধবার বিজয়া দশমীর রাতে জলপাইগুড়ি জেলার মাল নদীতে এই বিপর্যয়ে আহত হয়েছেন বহু মানুষ। এই ভয়াবহ বিপর্যয়ের জেরে মৃত্যুর ঘটনায় শোকপ্রকাশ করলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। একইসঙ্গে মৃতদের পরিবারকে ও আহতদের জন্য ক্ষতিপূরণ ঘোষণা করেন রাজ্যের প্রশাসনিক প্রধান। বৃহস্পতিবার মুখ্যমন্ত্রী টুইট করে জানিয়েছেন, এই ঘটনায় মৃতের নিকট আত্মীয়কে ২ লাখ টাকা এবং আহতদের ৫০ হাজার টাকা করে দেওয়া হবে। অন্যদিকে এই বিপর্যয়ে মৃতদের নিকট আত্মীয়দের ২ লাখ টাকা এবং আহতদের ৫০ হাজার টাকা দেওয়ার কথা ঘোষণা করেছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিও।বৃহস্পতিবার টুইটারে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় লিখেছেন, ‘দুর্গা প্রতিমার বিসর্জন চলাকালীন জলপাইগুড়ির মাল নদীতে একটি মর্মান্তিক হড়পা বানের ঘটনা ঘটেছে। ৮ জন প্রাণ হারিয়েছেন, আমি প্রার্থনা করি যেন তাদের পরিবার এই কঠিন সময়ে শক্তি খুঁজে পান। ১৩ জন মালবাজার সুপার স্পেশালিটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন, আমি তাদের দ্রুত আরোগ্য কামনা করছি।’

 

মালবাজারে বিপর্যয়ের ঘটনায় রাজ্য সরকারের তরফে ইতিমধ্যে হেল্পলাইন নম্বর খোলা হয়েছে। নম্বর গুলি হল, ০৩৫৬১২৩০৭৮০ ও ৯০৭৩৯৩৬৮১৫। এই কঠিন সময়ে সকলকে জোটবদ্ধ হওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন রাজ্যের প্রশাসনিক প্রধান। এদিন মুখ্যমন্ত্রী আরও লিখেছেন, ‘এনডিআরএফ এবং এসডিআরএফ-এখনও তল্লাশি অভিযান ও উদ্ধার কাজ চালাচ্ছে। পুলিশ, সিভিল ডিফেন্স স্বেচ্ছাসেবক এবং স্থানীয় যুবকদের চেষ্টায় প্রায় ৭০ জনকে উদ্ধার করা হয়েছে। আমি তাদের নিঃস্বার্থ ভূমিকার প্রশংসা করি। আর কেউ নিখোঁজ নেই বলেও জানান মুখ্যমন্ত্রী।

 

প্রসঙ্গত বুধবার রাতে মাল নদীতে প্রতিমা নিরঞ্জনের জন্য জড়ো হয়েছিলেন বহু মানুষ। রাত ৮টা নাগাদ আচমকা পাহাড়ের উপর থেকে জলের স্রোত নেমে আসে। সেই হড়পা বানে ভেসে যান অনেকে। স্রোতের টানে ভেসে যায় প্রতিমা বয়ে নিয়ে আসা ট্রাকও। এখনও পর্যন্ত ৮ জনের মৃত্যু হয়েছে। ঘটনায় জখম হয়ে মালবাজার সুপার স্পেশালিটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন বহু মানুষ।

Mailing List