বঙ্গোপসাগরে একই দিনে ৩টি ট্রলার ডুবি, নিখোঁজ ১২ মৎস্যজীবী

বঙ্গোপসাগরে একই দিনে ৩টি ট্রলার ডুবি, নিখোঁজ ১২ মৎস্যজীবী
19 Aug 2022, 06:58 PM

বঙ্গোপসাগরে একই দিনে ৩টি ট্রলার ডুবি, নিখোঁজ ১২ মৎস্যজীবী

 

তাপস পাল,  দক্ষিণ ২৪ পরগনা 

 

প্রত্যন্ত সুন্দরবনের দক্ষিণ ২৪ পরগনা জেলায় একই দিনে সমুদ্রের উল্টে গেল তিন তিনটি ট্রলার। দুটো ট্রলার থেকে লোকজনকে উদ্ধার করলেও একটি ট্রলার থেকে এখনো পর্যন্ত মৎস্যজীবীদের উদ্ধার করা সম্ভব হয়নি।

১৬ আগস্ট সুন্দরবনের কাকদ্বীপ মৎস্য বন্দর থেকে এফবি সত্যনারায়ণ নামে ট্রলারটি গভীর সমুদ্রের বুকে মাছ ধরতে গিয়েছিল। এদিকে ফের নিম্নচাপের প্রভাবে শুরু হয়েছে ঝড় ও বৃষ্টি। আবহাওয়া দফতরের খবর অনুযায়ী দক্ষিণ মায়নমাররের উত্তর বঙ্গোপসাগরে এক ঘুর্ণবর্তার সৃষ্টি হয়েছে। আবহাওয়া দফতরের আগাম পূর্বাভাস অনুযায়ী, দক্ষিণবঙ্গের উপকূলবর্তী এরিয়ায় শুক্রবার সকাল থেকে এলাকার সাধারণ মানুষজনদের কে সতর্ক করতে পুলিশ দফায় দফায় মাইকিং প্রচার করেছে। এমন পরিস্থিতির মধ্যে যখন ট্রলারটি বন্দরে ফিরছিল। আচমকা দুর্ঘটনা কবলের পড়ে বঙ্গোপসাগরের কেঁদো দ্বীপের কাছে ট্রলারটি ডুবে যায় বলে জানা গিয়েছে।

এই প্রসঙ্গে নারায়ণপুর মৎস্য ইউনিয়নের সম্পাদক মোজাম খান বলেন, 'আবহাওয়া দপ্তরের খবর অনুযায়ী তারা বন্দরের দিকেই ফিরছিল। প্রবল বর্ষণ ও ঝড়ের কবলে পড়ে ওই এফবি সত্যনারায়ণ ট্রলাটির এই দুর্ঘটনা ঘটে। ওই ট্রলারটিতে খুব সম্ভবত পাথরপ্রতিমা ও কাকদ্বীপ ব্লকের ১২ জন মৎস্যজীবীরা ছিলেন। চারটি ট্রলার এখন উদ্ধার কাজে গিয়েছে। না ফেরা পর্যন্ত আর কিছু বলা যাবে না।'

 

তিনি আরো জানান, নারায়ণপুর ট্রলার ইউনিয়নের দুটি ট্রলার মা স্নেহময়ী ও মা বিশালক্ষী এই দুটি ট্রলার মাছ ধরে যখন ফিরছিল। প্রাকৃতিক বিপর্যয়ে তখন বঙ্গোপসাগরের পশ্চিমে ওই দুটি ট্রলারটি ডুবে যায়। সেখানে অন্য ট্রলার থাকায় তৎপরতার সহিত মৎস্যজীবীদের উদ্ধার করা সম্ভব হয়েছে। অবশ্য কারোর কোন ক্ষয়ক্ষতি হয়নি।

দক্ষিণ ২৪ পরগণা জেলার মৎস্যজীবীদের গভীর সমুদ্রে যাওয়ার ক্ষেত্রে লাল সতর্কবার্তা জারি করেছে মৎস্য দফতর। মৎস্য দফতরের নিষেধাজ্ঞা লঙ্ঘন করে কেউ গভীর সমুদ্রে মাছ ধরতে গেলে তার লাইসেন্স ও বাতিল করা হতে পারে বলে মৎস্য দফতর এর তরফ থেকে জানানো হয়েছে।

Mailing List